• সর্বশেষ

    দিনাজপুরে ৬ বছরের শিশু এবং গৃহবধূ ধর্ষণের শিকার

    | সোমবার, ২৬ আগস্ট ২০১৯ | পড়া হয়েছে 57 বার

    দিনাজপুরে ৬ বছরের শিশু এবং গৃহবধূ ধর্ষণের শিকার

    দিনাজপুরের হাকিমপুর-হিলি’তে ৬ বছরের শিশু কন্যা এবং বিরলে এক হিন্দু গৃহবধূ ধর্ষণের শিকার হয়েছেন। ওই গৃহবধূর ঘটনায় ধর্ষক গ্রেপ্তার হলেও শিশুর ধর্ষক কলা মিয়াকে এখনও গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ।

    জানা যায়, ধর্ষণের শিকার ওই শিশুর মা সোমবার সকালে সাগর মিয়া কলা (২০) নামের এক যুবকের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দিয়েছে।

    রোববার দুপুরে হাকিমপুর উপজেলার দক্ষিণ জামালপুর মাটিকাটা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

    হাকিমপুর থানার অফিসার ইনচার্জ রেজাউল করিম জানান: ধর্ষণের শিকার ৬ বছরের শিশু কন্যা দক্ষিণ জামালপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ১ম শ্রেণির ছাত্রী। বিদ্যালয় ছুটির পর বাড়ির বাইরে খেলতে গেলে সাগর মিয়া কলা নামের এক প্রতিবেশী যুবক ওই মেয়েকে ফুসলিয়ে নিয়ে ধর্ষণ করে।

    এ ব্যাপারে ধর্ষণের শিকার শিশুর মা হাকিমপুর থানায় উপস্থিত হয়ে সোমবার সকালে সাগর মিয়া কলার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছে।

    হাকিমপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিক্যাল অফিসার শাকিল মাহমুদ জানান: প্রাথমিকভাবে ওই মেয়েকে ধর্ষণ করার আলামত পাওয়া গেছে। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য জয়পুরহাট সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

    অপরদিকে দিনাজপুরের বিরলে এক গৃহবধূ ধর্ষণের শিকার হয়েছে। ধর্ষকের পক্ষ নিয়ে মারধর করা হয়েছে ওই ধর্ষণের শিকার ওই গৃহবধূকে। তবে, মামলার পর ধর্ষককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

    জানা যায়, বিচারের নামে উল্টো ধর্ষণের শিকার নারীকে নির্যাতন করেছেন স্থানীয় ইউপি সদস্য ও মাতব্বররা। ধর্ষণের ঘটনাকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে স্থানীয় ইউপি সদস্য ও তার লোকজন ওই নারীর ওপর প্রায় ঘণ্টাব্যাপী নির্যাতন চালিয়ে তার ডান হাত ভেঙে দেয়।

    এরপর ওই নারী নিজে বাদী হয়ে বিরল থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ ধর্ষককে গ্রেপ্তার করে।

    চিকিৎসার জন্য তাকে দিনাজপুর এম. আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

    জানা গেছে, গত শুক্রবার দিবাগত রাত ৯টার দিকে উপজেলার মালঝাড় গ্রামে ৩৭ বছর বয়সী এক হিন্দু গৃহবধু নিজ ঘরে একাকী অবস্থান করার সময় দিনাজপুর কতোয়ালী থানার মাঝাডাঙ্গা গ্রামের মনতাজ আলীর ছেলে সুমন (৩৭) ওই ঘরে প্রবেশ করে তাকে ধর্ষণ করে।

    এসময় তিনি চিৎকার দিলে আশপাশের লোকজন এসে ধর্ষক সুমনকে হাতে নাতে ধরে ফেলে। এ ঘটনার কিছুক্ষণ পরেই ঘটনাস্থলে রাজারামপুর স্থানীয় এক ইউপি সদস্য বিজয় চন্দ্রসহ তার লোকজন (মাতব্বর) ছুটে আসে।

    বিরল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এটিএম গোলাম রসুল জানান: এ ঘটনায় শনিবার সকালে বিরল থানায় সংশ্লিষ্ট ধারায় একটি মামলা হয়েছে। মামলা হওয়ার সাথে সাথে ধর্ষককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

    Comments

    comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    ০৫ আগস্ট ২০১৯ | 92 বার

    ময়মনসিংহে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১

    ০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | 81 বার